বিজয় মেলা

উদ্দেশ্য

মহান মুক্তিযুদ্ধের ৫১ বছর অতিক্রান্ত হয়েছে। আমরা আগামী ১৬ই ডিসেম্বরে ৫১তম বিজয় দিবস উদযাপন করতে যাচ্ছি। তাৎপর্যপূর্ণ এই বিজয় দিবসকে আরও অর্থবহ করে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে মিরপুর ক্লাব একটি ব্যতিক্রমি উদ্যোগ নিয়েছে। ১৬ই ডিসেম্বর ১৯৭১ আমাদের বিজয় দিবস হলেও মিরপুর শত্রুমুক্ত হয়েছিল ৩১শে জানুয়ারি ১৯৭২-এ। মহান মুক্তিযুদ্ধে মিরপুরের অবদান সর্বজন বিদিত। বাংলা কলেজের বধ্যভূমি, মিরপুর ১১’র জল্লাদখানা, জহির রায়হানের আত্মবলিদান এর সবই মুক্তিযুদ্ধে মিরপুরকে একটি ভিন্ন মাত্রা দিয়েছে। মিরপুরেই রয়েছে বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে শহীদ বুদ্ধিজীবী সৃতিসৌধ, যার ফলক উন্মোচন হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর হাতে ১৯৭২ সালের ২২ ডিসেম্বর। ইতিহাসের এই সকল উপাদান নিয়ে আমরা মিরপুরবাসী গর্ব করতে পারি। ইতিহাসের এসকল উপাদান নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরাকে মিরপুর ক্লাব কর্তব্য মনে করেছে। তারই তাগিদে মিরপুর ক্লাব আগামী ১৬ই ডিসেম্বার ২০২২ থেকে ৩১শে জানুয়ারি ২০২৩ পর্যন্ত দেড়মাস ব্যাপি বিজয় মেলার আয়োজন করতে যাচ্ছে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের বিজয় অর্জন। আর তাই ৫২’র ভাষা আন্দোলনের গুরুত্ব কম নয়। মিরপুর ক্লাব আগামী ২১শে ফেব্রুয়ারী ২০২৩ তারিখে ভাষা মেলা “ভাষা-২১” উদযাপন করতে যাচ্ছে।

সার্বিক আয়োজনঃ

প্রথম অংশঃ বিজয় মেলা, বিজয়-৭১

সময়সীমাঃ ১৬ই ডিসেম্বর ২০২২ থেকে ৩১শে জানুয়ারি ২০২৩।

প্রথম পর্বঃ

বিজয় মেলার স্থানঃ শহীদ মোয়াজ্জেম হল, বাংলাদেশ নৌ বাহিনী, মিরপুর-১৪।

বিজয় মেলার তারিখঃ ১৬ই ডিসেম্বর ২০২২

দ্বিতীয় পর্বঃ ১০ই জানুয়ারি ২০২৩ থেকে ৩১শে জানুয়ারি ২০২৩।

স্থানঃ মিরপুর ক্লাব, মিরপুর-২।

অংশগ্রহণের নিয়মাবলী

(১) বিজয় মেলার মূল অনুষ্ঠানে সকল প্রতিযোগী এবং তার অভিবাবকদিগকে উপস্থিত থাকতে হবে।

(২) শুধুমাত্র একটি বিষয়ের জন্য রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।

(৩) রচনা, ভিডিও গেম এবং কুইজ প্রতিযোগিতা ছাড়া বাকী বিষয়গুলোর প্রতিযোগিকে অবশ্যই শো-রীল (ছবি/গান/নাচ/আবৃত্তির ভিডিও) জমা দিতে হবে।   

(৪) বিচারক মন্ডলী শো-রীল দেখে প্রাথমিক সিলেকশন করবেন।

(৫) শুধুমাত্র প্রাথমিক সিলেকশনে মনোনিত প্রতিযোগীগণ চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন।

(৬) রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীকে ১লা ডিসেম্বর থেকে ১০ই ডিসেম্বর ২০২২ এর মধ্যে রচনা জমা দিতে হবে।

রেজিস্ট্রেশনের নিয়মাবলিঃ

(১) সকল বিষয়ের প্রতিযোগীকে ৫০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

(২) প্রতিযোগী ব্যাতিত অভিবাবকদের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহনের জন্য রেজিস্ট্রেশন ফী জন প্রতি ৬০০ টাকা।

(৩) রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পর সকলকে তাদের রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সাথে রিফ্রেশমেন্ট এবং ডিনারের কুপন সংগ্রহ করতে হবে।

(৪) শুধুমাত্র মিরপুর ক্লাবের ওয়েব সাইট এবং “এমসিএল বিজয়মেলা এপ” এর মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা যাবে। রেজিস্ট্রেশন ফী শুধুমাত্র বিকাশে জমা দেয়া যাবে।

(৫) রেজিস্ট্রেশন এর সর্বশেষ সময় সীমা ১২ই ডিসেম্বর ২০২২ রাত ১১:৫৫ মিনিট (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে)।

(৬) রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে (১) এন্ট্রি কার্ড, (২) রিফ্রেশমেন্ট কুপন (৩) ডিনার কুপন এবং (৪) লাকি-ড্র কুপন এর ডিজিটাল কপি ইমেইলে এবং হোয়াটস-এপে প্রেরণ করা হবে। পরবর্তীতে অনুষ্ঠানের আগে নির্ধারিত সময়ে কুপনের হার্ড কপি সংগ্রহ করতে হবে। বিশেষ ক্ষেত্রে অনুষ্ঠান স্থলের বুথ থেকে কার্ড এবং কুপনের হার্ড কপি সংগ্রহ করা যাবে।        

বিজয় মেলার বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানসূচীঃ

প্রথম পর্বঃ প্রতিযোগিতা পর্ব

সময়সীমাঃ দুপুর ২টা থেকে শুরু হয়ে ৬টা পর্যন্ত চলবে।

দ্বিতীয় পর্বঃ আলোচনা পর্ব

সময়সীমাঃ সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৭টা পর্যন্ত চলবে।

প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, সম্মানিত অতিথি, সভাপতির সমন্বয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান।

আলোচনার বিষয়ঃ (১) মহান মুক্তিযুদ্ধে ঢাকা তথা মিরপুরের ভূমিকা। (২) মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় কমিউনিটি গঠন। (৩) নতুন প্রজন্মের ভূমিকা, নতুন নেতৃত্ব এবং দায়িত্বশীলতা।

তৃতীয় পর্ব

পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ৭টা থেকে ৭টা ৩০ মিনিট।

চতুর্থ পর্ব

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ৭টা ৩০মিনিট থেকে ৯টা।

পঞ্চম পর্ব

আমন্ত্রিত অতিথিদের জন্য আপ্যায়ন ৯টা।

প্রধান অতিথিঃ আসাদুজ্জামান খাঁন; স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, বাংলাদেশ সরকার।

বিশেষ অতিথিঃ

(১) কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি, মাননীয় শিল্প প্রতিমন্ত্রী, বাংলাদেশ সরকার।

(২) আলহাজ্ব ইলিইয়াস উদ্দিন মোল্লাহ্, ঢাকা-১৬ আসনের সংসদ সদস্য।

(৩) আগা খান, এম পি, ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য।

(৪) মুস্তাফিজুর রহামান, সচিব, ভূমি মন্ত্রনালয়। 

সম্মানিত অতিথিঃ

(১) বিকর্ণ কুমার ঘোষ, ম্যানেজিং ডিরেক্টর, বাংলাদেশ হাই টেক পার্ক অথোরিটি।

(২) অধ্যাপক ডঃ এম কায়কোবাদ, ডিস্টিংগুইশড প্রোফেসর, ব্র্যাক ইউনিভারসিটি।

বিশেষ বক্তাঃ

(১) সুশান্ত কুমার সাহা, (প্রাক্তন অতিরিক্তি সচিব, স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়), ভাইস প্রেসিডেন্ট, মিরপুর ক্লাব।

(২) মুক্তিযোদ্ধা মাহবুব জামান, (ম্যানেজিং ডাইরেক্টর, ডাটাসফট সিস্টেমস লিমিটেড) ভাইস প্রেসিডেন্ট, মিরপুর ক্লাব।

সভাপতিঃ এস এম মাহাবুব আলম, ফাউন্ডিং প্রেসিডেন্ট, মিরপুর ক্লাব।

শিল্পীঃ রফিকুল আলম

দ্বিতীয় অংশঃ ভাষা মেলা, ভাষা২১

স্থানঃ বাংলাদেশ পুলিশ কনভেনশন হল, মিরপুর১৪

তারিখঃ ২১শে ফেব্রুয়ারী, ২০২৩


আরো দেখুন : বিজয় মেলা